Breaking News

জয় শাহর আহমেদাবাদে কেন ইংল্যান্ড সিরিজের অধিকাংশ ম্যাচ ? ক্ষোভ চলছে বোর্ডে

Why most of the matches of England series in Joy Shah Ahmedabad? Anger is going on in the board

ইস্টার্ন টাইমস ,স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতের মাটিতে আয়োজিত পরের বছরের ইংল্যান্ড সিরিজের ১২ টি ম্যাচের মধ্যে ৭টি ম্যাচই সদ্য নির্মিত আহমেদাবাদের মোতেরা তে। মুম্বই, কলকাতা র মত বাকি ভেন্যু রা কার্যত বঞ্চিত । সচিব জয় শাহর রাজ্য বলেই কি এই সুবিধা! প্রশ্ন ভারতীয় ক্রিকেটে উঠতে শুরু করেছে।

এবার বোর্ডের সদস্যভুক্ত ক্রিকেট সংস্থার মধ্যে ক্ষোভ চরমে। গত বৃহস্পতিবারই বোর্ডের তরফে আসন্ন ইংল্যান্ড সিরিজের সূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

সেখানে দেখা যাচ্ছে, ৪টে টেস্টের সঙ্গে তিনটে ওডিআই এবং পাঁচটা টি২০ খেলবে দুই দল। সিরিজ শুরু হচ্ছে ফেব্রুয়ারির ৫ তারিখে। শেষ হবে ২৮ মার্চ। প্রায় দু মাসের ক্রিকেট সিরিজ শুরু হবে চেন্নাইয়ে টেস্টের মাধ্যমে। তারপর যথাক্রমে টি২০ ও একদিনের সিরিজ খেলা হবে।

তবে টেস্ট দুই ভেন্যুতে হবে। চেন্নাইয়ে প্রথম দুই টেস্টের পর বাকি দুই টেস্ট হবে আমেদাবাদে। যার মধ্যে একটি আবার গোলাপি বলে দিন রাতের। টি২০-র পাঁচটি ম্যাচই হবে মোতেরায়। একদিনের সিরিজ হবে পুণের গ্রিনফিল্ড স্টেডিয়ামে। তিনটি ম্যাচই। সিরিজের এই ভেন্যু নিয়ে অসোষ কারণ বোর্ডের সূচি তে ম্যাচ পাওয়ার কথা ছিল মুম্বই ও কলকাতারও ।

যদিও বোর্ড কর্তা দের যুক্তি করোনার জন্য বারবার যাতায়াত করতে অসুবিধা হবে তাই একটা জায়গায় বায়ো বলয় করলে সুবিধা ।

সৌরভের নিজস্ব ক্রিকেট সংস্থা সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া বিষয়টা নিয়ে সৌরভ কে জানান।সৌরভ তাকে জানান পরে ভারতে যে হোম সিরিজ হবে সেই ম্যাচ গুলো ইডেন পাবে ।শুধু বোর্ড সচিবের রাজ্য নয় পুণে কীভাবে একদিনের সিরিজের সব ম্যাচের আয়োজন করছে, তা নিয়েও বিস্মিত প্রত্যেক ক্রিকেট সংস্থা।

এছাড়া জয় শাহ র সঙ্গে শ্রীনিবাসনের মেয়ে যিনি তামিলনাড়ু ক্রিকেট এসোসিশনের তার সঙ্গে সুসম্পর্কর জন্য চেন্নাই দুটো টেস্ট পেল এমনই মনে করা হচ্ছে ।

অনেকে আবার প্রশ্ন তুলছে জয় শাহর বাবা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর ভোটেই সৌরভ বোর্ড সভাপতি হন তাই সৌরভের চাইলেই বি সি সি আইতে সব কিছু করা সম্ভব নয় । ফলে কার্যত বলাই যায় মুম্বই লবির পরে বোর্ডে গুজরাট লবির মুন্সিয়ানা চলছে।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

স্বাধীনতার পূর্বে মৃত বাচ্চার নামে তৈরী হয় তপন মেমোরিয়াল

Read Next

গণতন্ত্র- অমিতাভের পথ

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.