Breaking News

কেন্দ্রীয় সরকারের তিনটি কৃষি আইন আপাতত স্থগিত রাখতে বললো সুপ্রিম কোর্ট

The Supreme Court has asked the central government to suspend three agricultural laws for the time being

ইস্টার্ন টাইমস , নয়াদিল্লি: কেন্দ্রের জারি করা তিনটি কৃষি আইন আপাতত বলবৎ নয়, সোমবার এমনটাই জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট।এই আইন নিয়ে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, সামান্যতম সংবেদনশীলতা থাকলে এখনই কৃষি আইন লাগু থেকে বিরত থাকুক সরকার। তবে কৃষি আইন প্রত্যাহার করা হবে কি না সে বিষয়ে আদালতের তরফে কিছু জানান হয়নি।প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে’র ডিভিশন বেঞ্চের অন্য দুই বিচারপতি হলেন এ এস বোপান্না এবং ভি রামা সুব্রমনিয়ান।

প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ, কৃষি আইন প্রত্যাহারে দাবিতে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তা কাম্য নয় মোটেও।কোনও ভাবে এই আন্দোলনের ফলে পরিস্থিতি যেন হাতের বাইরে না যায়।

আমরা কেউ নিজেদের রক্তমাখা হাত দেখতে চাই না। কোনও মৃত্যু বা কোনও ক্ষত দেখতে চাই না আমরা।আলোচনার টেবিলে দাবিগুলির সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আইন কার্যকর করা যাবে না।

ফলে কিছুদিনের জন্য আইনটি কার্যকর করা থেকে বিরত থাকুক কেন্দ্র।প্রধান বিচারপতি কার্যত কেন্দ্রীয় সরকারকে ধমক দিয়ে বলেন , ‘‌হয় আপনারা কৃষি আইন স্থগিত রাখুন, নয়তো আমরা করছি। এখানে ইগোর কী রয়েছে?‌’‌

প্রসঙ্গত কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে গত নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে লাগাতার দিল্লিতে কৃষক আন্দোলন জারি রয়েছে।টানা ৮ রাউন্ড বৈঠকের পরেও কৃষকদের সঙ্গে রফা সূত্র বের করতে পারেনি কেন্দ্রীয় সরকার।

এদিন শুনানির সময় প্রধান বিচারপতি উষ্মা প্রকাশ করে বলেন , “দিনের পর দিন দিল্লির রাজপথে বয়স্ক মানুষেরা বসে আছেন, মহিলারা বসে আছেন, তাহলে কেন সরকার এই পরিস্থিতি দেখেও কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না?” সেই প্রেক্ষিতেই আদালতের তরফে বলা হয় যে, আইন প্রণয়ন কি আরেকটু বিচক্ষণতার সঙ্গে করা যেত না? আগামী ১৫ জানুয়ারি ফের কৃষক সংগঠনগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসবে সরকার।

তার আগে প্রধান বিচারপতির এদিনের মন্তব্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

বিজেপি ভোটের আগে বলে নাগরিকত্ব দেবো , কিন্তু ভোটের পরে পালিয়ে যায় :মমতা বন্দোপাধ্যায়

Read Next

বিমান ও রেল চালনায় ভারতীয় মহিলাদের ঐতিহাসিক সাফল্য

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.