Breaking News

পুলিশি হেফাজতে কিশোরের মৃত্যু : মল্লারপুর সরগরম

পারিজাত সেনগুপ্ত

বীরভূম জেলার মল্লারপুরে পুলিশি হেফাজতে কিশোর শুভ মেহেরার রহস্যময় মৃত্যু কে ঘিরে রাজনৈতিক পারদ ক্রমেই বাড়ছে।শাসক ও বিরোধী দলের চাপান উতোর,মৃতের পরিবারের রাজনৈতিক আনুগত্যের ঠিকুজি সন্ধান, পাশে থাকার নিয়মমাফিক প্রতিশ্রুতি, বনধ, ঘোলা জলে মাছ ধরার চেষ্টা যত বাড়ছে তত কমছে কিশোরের মৃত্যুর জন্য দায়িদের চিহ্নিত করে যথোপযুক্ত শাস্তি দানের আশা।

এই পরিস্থিতিতে তথ্যানুসন্ধানের জন্য শৈলেন মিশ্র, মনীষা ব্যানার্জী সহ এপিডিআর বোলপুর শাখার চার সদস্যের এক প্রতিনিধি দল মল্লারপুরে যায় দোসরা নভেম্বর। পুলিশ প্রশাসনের অসহযোগিতা, মৃতের বাড়ির লোকদের কথা বলতে না দেওয়ার জন্য শাসক দলের স্থানীয় কর্মীদের দৃষ্টিকটু ‘ সক্রিয়তা’ সত্বেও মানবাধিকার কর্মীদের পর্যবেক্ষণে যে সমস্ত তথ্য তা গুরুত্বপূর্ণ।

প্রথমত মৃত শুভ মেহেরাকে পুলিস গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার সকালে। মৃতের বাবা ও পাড়াপড়শি সেটাই জানিয়েছে। শুভর বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ ছিল। আর কিশোরটির মৃত্যু হয় শুক্রবার রাতে।আইন অনুসারে গ্রেপ্তার হওয়ার চব্বিশ ঘন্টার মধ্যে তাকে আদালতে হাজির করার কথা যা পুলিশ করে নি।

দ্বিতীয়ত মানবাধিকার কর্মীদের তথ্য মোতাবেক মৃতের বয়স খুব বেশি হলে চোদ্দ। তাহলে তাকে রাখা উচিত জুভেনাইল বোর্ডের অধীনে।কিন্তু তা করা হয় নি বরং ছেলেটিকে থানা লকআপে রাখা হয়েছিল যা সম্পুর্ন বেঅাইনি।

তৃতীয়ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হলে তার বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট করে কেস দায়ের করতে হবে।একই ভাবে পুলিশ হেফাজতে কারো অস্বাভাবিক মৃত্যু হলে সুয়োমোটো মামলা হবে।কিন্তু শৈলেন বাবুদের অভিযোগ চাওয়া সত্বেও এই ব্যাপারে পুলিশ কোন তথ্য দিতে অস্বীকার করেছে।

চতুর্থত শুভ মেহেরার মৃত্যুর কারণ নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহের কারণ আছে। পুলিশের আচরণ দেখে মনে হয়েছে তারা কিছু আড়াল করার চেষ্টা করছে।যদিও মৃতের বাবা প্রতিনিধি দলকে জানিয়েছেন তার ছেলে আত্মহত্যাই করেছে। তবে সেক্ষেত্রে রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক চাপ থাকার সম্ভাবনা প্রবল।

এই অবস্থাতে মানবাধিকার কর্মীদের দাবি ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত,তদন্ত সাপেক্ষে ঐ থানার পুলিশ আধিকারিক দের সাসপেনশন ও মৃতের পরিবারের উপযুক্ত সরকারি ক্ষতিপূরণ।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

কেমন যাবে আপনার আজকের দিনটি : দৈনিক রাশিফল

Read Next

মৌসম ভবন এর পূর্বাভাস শৈত্যপ্রবাহ বইতে পারে আগামী ৪৮ ঘণ্টায়

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.