Breaking News

চার রাজ্য ও এক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের, বঞ্চিত বাংলা

Special financial package for four states and one union territory from the Ministry of Home Affairs deprived Bengali

ইস্টার্ন টাইমস , নয়াদিল্লি : শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের কেন্দ্রীয় কমিটি চার রাজ্য এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ অনুমোদন করেছে । রাজ্যগুলিকে প্রায় ৩১১৩ কোটি টাকা দেবে কেন্দ্র। এই প্যাকেজ ২০২০ সালে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও পঙ্গপালের হানায় ক্ষতির জন্য দেওয়া হচ্ছে ।

এই চার রাজ্য হল অন্ধ্রপ্রদেশ, বিহার, তামিলনাড়ু এবং মধ্যপ্রদেশ ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরি।স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়েছে একথা।

তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে তালিকা নেই বাংলার নাম। বস্তুত, গত বছর ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল রাজ্যে। যে চার রাজ্যের জন্য প্যাকেজ ঘোষণা হয়েছে, তাদের মধ্যে তামিলনাড়ু এবং পুদুচেরিতে এবছর নির্বাচন রয়েছে।

এবছরের শেষদিকে ঘূর্ণিঝড় নিভারের জেরে ক্ষয়ক্ষতি হয় তামিলনাড়ু ও পুদুচেরিতে। বিহারে গতবছর বন্যায় বহু ক্ষয়ক্ষতি হয়। মধ্যপ্রদেশে পঙ্গপালের হানায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় শস্যের।

শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে , অন্ধ্রপ্রদেশ ২৮০.৭৮ কোটি টাকা, বিহার ১২৫৫.২৭ কোটি টাকা, তামিলনাড়ু ৬৩.১৪ কোটি নিভারের জন্য এবং ঘূর্ণিঝড় বুরেভির জন্য ২৮৬.৯১ কোটি টাকা, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরি ৯.৯১ কোটি টাকা পাবে। পঙ্গপাল হানার জন্য মধ্যপ্রদেশ পাচ্ছে ১২৮০.১৮ কোটি টাকা।

এই রাজ্যগুলিতে বিপর্যয়ের পরপরই কেন্দ্রীয় আন্তঃমন্ত্রক প্রতিনিধি দলকে পাঠিয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। সেই টিমের রিপোর্টের ভিত্তিতেই এই প্যাকেজ ঘোষণা করে কেন্দ্র।

তবে আমফানে ব্যাপক ক্ষতির পরেও প্যাকেজের তালিকায় নেই বাংলার নাম।২০২০-২১ অর্থবছরের মধ্যে,এখনো পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্য বিপর্যয় ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা তহবিল (এসডিআরএমএফ) থেকে ২৮ টি রাজ্যকে ১৯ ০৩৬.৪৩ কোটি টাকা এবং এনডিআরএমএফ থেকে ১১ টি রাজ্যকে ৪৪০৯.৭১ কোটি টাকা দিয়েছে।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

জনসাধারণের ব্যবহৃত স্থান অনির্দিষ্টকালের জন্য দখল করে আন্দোলন করা যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট

Read Next

কংগ্রেস আসামে ক্ষমতায় এলে সিএএ কার্যকর করা হবেনা : রাহুল গান্ধী

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.