Breaking News

রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিলেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেন, বললেন টাকা দিয়েছি শুভেন্দু ,মুকুল ,বিমান ,সুজন ,অধীরকে

Sardar Sudipta Sen takes state politics by storm, says I gave money to Shuvendu, Mukul, Biman, Sujan, Adhir

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা: সারদা কেলেঙ্কারির তদন্ত শুরু হবার সাত বছর পর একুশের নির্বাচনের আগে জেলে বসে একটি চিঠি লিখে রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তুলে দিলেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেন। এই চিঠির সত্যি-মিথ্যা যাচাই করবে গোয়েন্দা সংস্থা। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির প্রচারযুদ্ধে আরও একটি অস্ত্র তুলে দিলেন জনগণের কয়েক হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে অভিযুক্ত সুদীপ্ত সেন।

তবে সুদীপ্ত সেনের চিঠিতে অন্যান্যদের সঙ্গে উল্লেখ করা হয়েছে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়ের নামও।

সারদাকর্তার চিঠি নিয়ে প্রচার যুদ্ধে নামতে হলে মুকুলবাবু সম্পর্কেও একটা যুক্তিগ্রাহ্য ব্যাখ্যা দিতে বিজেপি নেতৃত্বকে।সেই ব্যাখ্যাটা কি হতে পারে তা নিয়ে চলছে জল্পনা।তবে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলের আর একটা বড় অংশ মনে করছেন সারদাকর্তার এই চিঠি তৃণমূল কংগ্রেসকে সুবিধা করে দেবার জন্যই . প্রেসিডেন্সি জেল থেকে মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরে চিঠি লিখে রাজ্যের একাধিক রাজনৈতিক দলের নেতার বিরুদ্ধে টাকা নেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন সারদা কর্তা।

কে নেই সেই তালিকায়, রাজ্য রাজনীতিতে যিনি এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি চর্চায় সেই শুভেন্দু অধিকারী থেকে শুরু করে মুকুল রায়, বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু, বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী এবং প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরির নামও রয়েছে চিঠিতে।

 Sardar Sudipta Sen takes state politics by storm says I gave money to Shuvendu Mukul Biman Sujan Adhir

কারা দফতর সূত্রে খবর, গত ১ ডিসেম্বর সুদীপ্ত সেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লেখেন। চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, সারদা চিটফান্ডের ব্যবসা চালানোর জন্য কাকে কত টাকা দিতে হয়েছে। সেখানে তিনি লিখেছেন তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে ৬ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। ৯ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে বিধানসভায় বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীকে।

বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসুকে ২ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। সুদীপ্ত সেনের অভিযোগের তালিকায় রয়েছেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরিও।

তিনি নাকি ৬ কোটি টাকা নিয়েছেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছেন সুদীপ্ত।তবে একদা তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড তথা বর্তমানে বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়কে কত টাকা দিয়েছেন তা মনে করতে না পারলেও, মোটা অঙ্কের টাকাই তাঁকে দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন সুদীপ্ত সেন।

দু’পৃষ্ঠার এই চিঠিতে স্বাক্ষরও রয়েছে সুদীপ্ত সেনের। এই চিঠি কারা দফতরের মাধ্যমে পৌঁছেছে এডিজির কাছে। তারপর সেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরে তা পাঠানো হয়েছে। তবে এখন প্রশ্ন উঠছে, হঠাৎ ভোটের মুখে কেন চিঠি লিখে এমন বিস্ফোরক অভিযোগ করতে গেলেন সুদীপ্ত সেন? এর পিছনে কি কোনও রাজনীতি আছে? চিঠির বয়ান সারদাকর্তারই লেখা কি না তা এখনও পরিষ্কার নয়। তবে হাতের লেখা পরীক্ষা করবে সিবিআই। জানা গিয়েছে, গ্রাফোলজিস্টের কাছে এই চিঠি পাঠানো হবে পরীক্ষার জন্য।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

মেসি কে নিয়ে বার্সা’র ঝামেলায় বিব্রত কোচ রোনাল্ড কোমান

Read Next

তৃণমূল বিধায়ক খুনের মামলায় অতিরিক্ত চার্জশিটে অন্যতম অভিযুক্ত মুকুল রায়

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.