Breaking News

রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিলেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়

Forest Minister Rajiv Banerjee has resigned from the state cabinet

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা : শুভেন্দু অধিকারী, লক্ষীরতন শুক্লর পর মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিলেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজীবের পদত্যাগের সঙ্গে সঙ্গেই এক মাসের মধ্যে ৩ জন রাজ্যমন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করলেন।দলবদলের জল্পনার মধ্যেই রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ বনমন্ত্রীর। শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি।

ইস্তফাপত্র পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের কাছেও। প্রোটোকল অনুযায়ী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সুপারিশ করলেই তা গ্রহণ করবেন রাজ্যপাল। যদিও বেলা ১:১৫ নাগাদ নিজেই রাজভবনে এসে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

বেশ কিছুদিন ধরেই বেসুরো ছিলেন বনমন্ত্রী। শুক্রবার মন্ত্রী পদে ইস্তফা দিলেন। এবারে দল ছাড়া শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র। খুব তাড়াতাড়িই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তাঁর।

কয়েকমাস ধরেই রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে জল্পনা চলছে। একাধিক অরাজনৈতিক মঞ্চে তাঁকে বারে বারে ‘বেসুরো’ শুনিয়েছে। তবে তাঁর সাম্প্রতিক ফেসবুক লাইভ সেই জল্পনাকে আরও উস্কে দিয়েছিল।

শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে থেকেই রীতিমতো বেসুরো রাজীব। একাধিকবার প্রকাশ্যেই মুখ খুলেছেন তিনি। তৃণমূলের অভ্যন্তরে যে তাঁর কাজ করতে অসুবিধা হচ্ছে, তাও জনসমক্ষে বলতে শোনা গিয়েছে রাজ্যের বনমন্ত্রীকে। একটানা ছয়টি মন্ত্রিসভার বৈঠকেও গরহাজির ছিলেন তিনি।

বনমন্ত্রীর মানভঞ্জনে তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমকে দায়িত্ব দিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু সেসব কার্যত কোনও কাজেই এল না।

শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন রাজীব। এরপর তিনি সশরীরে রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। তবে, মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও তৃণমূলের প্রাথমিক সদস্যপদ এবং বিধায়ক পদ এখনও ছাড়েননি রাজীব।

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর পদত্যাগপত্রে মন্ত্রিত্ব ত্যাগের কারণ জানানি। যা লিখেছেন তার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, ‘মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী, মন্ত্রিত্ব ছাড়লাম।

দুঃখের সঙ্গে আপনাকে সিদ্ধান্ত জানাচ্ছি। রাজ্যের মানুষের সেবার সুযোগ পেয়েছি। সেই সুযোগ আমাকে দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। রাজ্যপালকেও পদত্যাগের কপি পাঠিয়েছি। ইস্তফাপত্র গ্রহণ করলে বাধিত হব।’

এ দিকে, মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পরেই পদত্যাগী মন্ত্রী একটি ফেসবুক পোস্ট করেন। সেখানে লেখেন, ‘বন্ধুরা, মন্ত্রিত্ব ছাড়লাম। আপনারা সবাই আমার পরিবারের সদস্য।

আপনাদের সমর্থনেই আমি কাজের জোর পেয়েছি। আশা করছি, ভবিষ্যতেও আপনাদের সেবা করতে পারব। আপনাদের সেবার জন্যই আমি রাজনীতিতে আছি।’

 

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

জিতলেও আক্রমণ নিয়ে অখুশি হাবাস

Read Next

কলকাতার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে নির্বাচন কমিশনের প্রশ্নের মুখে পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.