Breaking News

বোলপুরে চার কিলোমিটার দীর্ঘ রোড-শো করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Mamata Banerjee did a four kilometer long road show in Bolpur

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা: মঙ্গলবার পথে নামলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বোলপুরের লজ মোড় থেকে পদযাত্রা শুরু করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চার কিলোমিটার দীর্ঘ পদযাত্রা শেষ হয় জামবুনি মোড়ে।

তাৎপর্যপূর্ণভাবে রাস্তার দুধারে ছেয়ে গিয়েছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অনুব্রত মণ্ডলের কাটআউটে।

রাস্তায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের থেকেও বড় বড় ছবি দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অনুব্রত মণ্ডলের। মিছিল শেষে আবার কবিগুরুর মূর্তিতে মাল্যদান করেন মমতা।

রোড শোয়ের একদম সামনে ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাংসদ শতাব্দী রায়। তার পিছনে ছিলেন বাউল শিল্পীরা, কীর্তনীয়ারা এবং ঢাকিরা।

 Mamata Banerjee did a four kilometer long road show in Bolpur

বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই বাড়ছে এবং রাজনীতির উত্তাপ।

এদিনের মিছিলে তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের চেয়ে আধিক্য ছিল বোলপুরের সংস্কৃতি জগতের মানুষের। উল্লেখ্য, যে বাউলের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ করেছিলেন অমিত শাহ, এদিন সেই বাউলও পা মিলিয়েছিলেন এই মিছিলে।

এদিন তৃণমূলের দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিছিলে দুলক্ষ মানুষ যোগ দিয়েছিলেন। যাঁদের মধ্যে কিছু মানুষ পদযাত্রায় পা মিলিয়েছিলেন, তো কিছু মানুষ রাস্তার দুধারে দাড়িয়েছিলেন।

 Mamata Banerjee did a four kilometer long road show in Bolpur

সেই ভিড় সামাল দিতে শেষপর্যন্ত দড়ি দিয়ে রাস্তার দুধার আটকে দেওয়া হয়। যদিও বিজেপি নেতা অনুপম হাজরার অভিযোগ, বাইরের জেলা থেকে হুমকি দিয়ে লোক এনে পদযাত্রায় সামিল করেছে তৃণমূল।

রোড শো শেষে জামবুনিতে ভাষণ দেন মমতা। তিনি বললেন ‘কিছুদিন ধরে কুকথায় রবীন্দ্রনাথ-অমর্ত্য সেনকে আক্রমণ করা হচ্ছে।

নতুন করে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখানোর দরকার নেই। সোনার বাংলার স্রষ্টা রবীন্দ্রনাথই। বিশ্বভারতীর, শান্তিনিকেতনের অপমান করা হচ্ছে। বিশ্বভারতীতে ঘৃণ্য রাজনীতির আমদানি করা হয়েছে। ঘৃণ্য-বিদ্বেষমূলক রাজনীতির আমদানি হয়েছে।’ এদিনও মমতা দাবি করেন ‘ফাইভ স্টার হোটেলের খাবার আদিবাসী বাড়ির খাবার বলে চালানো হচ্ছে।

 Mamata Banerjee did a four kilometer long road show in Bolpur

‘ অথচ মমতার মিছিলের দিন বোলপুরের সেই বাউল শিল্পী নিজেও হেঁটেছেন।

ভাষণে মমতা বলেন, ‘টাকা দিলে গরিব মানুষ নিয়ে নিন, ভোটে ওদের বিদায় দিন। টাকা দিয়ে কয়েকটা এমএলএ কিনে নিলে, তৃণমূলকে কেনা যায় না। আমার একটাই পরিবার, মানুষের পরিবার, আর কেউ নেই।

গ্রামে বহিরাগত দেখলে, পুলিশে খবর দিন। ভো কাট্টা করে বিরোধীদের উড়িয়ে দিন।’

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

দিলীপ ঘোষ ও অমর্ত্য সেনের কোর কম্পিটেন্স

Read Next

চীনা মহিলা সাংবাদিকের চার বছরের কারাদন্ড , কোভিড-১৯ সম্পর্কিত সংবাদ প্রচারের অভিযোগে

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.