Breaking News

‘২১-এ উৎখাত করবো তৃণমূল সরকার ,কলকাতায় এসেই মমতাকে নিশানা জে পি নাড্ডার

I will overthrow the Trinamool government in '21 come to Kolkata and target Mamata JP Naddar

ইস্টার্ন টাইমস ,কলকাতা: বুধবার দুদিনের রাজ্য সফর শুরু করে ২০২১-এ মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকারকে উচ্ছেদ করার হুঙ্কার দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এদিন সফরের প্রথম কর্মসূচি হিসাবে হেস্টিংসে দলের নির্বাচনী কার্যালয়ের উদ্বোধনে করেন তিনি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে জে পি নাড্ডা বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল সরকারকে উৎখার করার ডাক দেন । তাঁর বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সহিষ্ণুতার কথা বলতেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অসহিষ্ণুতার কথা বলেন। তাঁর শাসনে বিরোধী নেতা-কর্মীরা খুন হচ্ছেন।’

কলকাতা থেকে এদিন অনলাইনে বিভিন্ন জেলায় বিজেপির ৯টি নির্বাচনী কার্যালয়েরও উদ্বোধন করেন জে পি নাড্ডা।

I will overthrow the Trinamool government in '21 come to Kolkata and target Mamata JP Naddar

এপ্রসঙ্গেই তিনি অফিস ও পার্টি অফিসের মধ্যে পার্থক্যের কথা তুলে ধরেন। বলেন, ‘অফিস নির্দিষ্ট সময় মেনে খোলে, বন্ধ হয়। কিন্তু পার্টি অফিস সবসময় চলে।’পরিবারতন্ত্র নিয়েও বুধবার তৃণমূল কংগ্রেসকে বিঁধেছেন বিজেপি সভাপতি। তাঁর কথায়, ‘আমাদের দল দফতর থেকে চলে। আর অন্যদের পরিবারই পার্টি।

তৃণমূলও তার থেকে আলাদা নয়। তৃণমূলও একটি পরিবারের পার্টি। অন্যদিকে বিজেপির পার্টিই পরিবার।’

কেন্দ্রের নয়া কৃষিআইন নিয়ে জেপি নাড্ডা বলেন, ‘কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের ভুল বোঝাচ্ছেন বিরোধীরা। কৃষকদের আশীর্বাদ আছে বলেই সম্প্রতি সব নির্বাচনে জয় এসেছে।’ রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত সরকারের বিরুদ্ধেও আক্রমণ শানান তিনি। তিনি বলেন, ‘বাংলাতে দুর্দশার শিকার কৃষকরা। এর জবাব ২০২১-এর ভোটে পাবে তৃণমূল। বিজেপি ২০০-র বেশি আসন নিয়ে বাংলা জয় করবে।’

I will overthrow the Trinamool government in '21 come to Kolkata and target Mamata JP Naddar

সোনার বাংলাকে দুর্নীতি, ভাই-ভাতিজার রাজনীতি গ্রাস করেছে বলেও এদিন দাবি করেন তিনি। সরব হন তৃণমূলের তুষ্টিকরণের রাজনীতির বিপক্ষেও।

এদিন হেস্টিংসে দলের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করতে আসার সময় জে পি নাড্ডাকে কালো পতাকা দেখানো হয়। কৃষি আইন প্রত্যাহার–সহ একাধিক স্লোগান লেখা পোস্টার এবং কালো পতাকা নিয়ে জড়ো হন বিক্ষোভকারীরা। পুলিশ এবং বিজেপি কর্মীরা তাঁদের হঠিয়ে দিতে গেলে একপ্রস্থ ধস্তাধস্তিও হয়। রাস্তায় চিৎকার জুড়ে দেন বিক্ষোভকারীরা। কালা আইন বাতিল করুন বলে স্লোগান তোলা হয়।

দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করার পাশাপাশি,ভবানীপুরে দলের ‘আর নয় অন্যায়’ কর্মসূচিতে যোগ দিয়ে জেপি নাড্ডা রাজ্য সরকারকে কড়া সমালোচনা করে বলেন, ‘‌বাংলায় ১৩০ জন বিজেপি কর্মীকে খুন করা হয়েছে। যখন–তখন বিজেপি নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। যাঁরা সরকারের সমালোচনা করছেন, তাঁদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অসহিষ্ণুতার সরকার চালাচ্ছেন।’‌

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

হাসপাতালে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

Read Next

কৃষক আন্দোলন আরও তীব্র , সরকারের দেওয়া প্রস্তাব পুরোপুরি নাকচ

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.