Breaking News

দুর্গাপুজোয় তিনদিনের ছুটি ঘোষণা না করায় হতাশ বাংলাদেশের হিন্দুরা

ইস্টার্ন টাইমস, বিশেষ সংবাদ , ঢাকা, ২১ অক্টোবর: দুর্গাপুজোয় তিনদিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা না করায় বাংলাদেশের হিন্দুরা শেখ হাসিনা সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ বলে জানিয়েছে জাতীয় হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক।

বাংলাদেশজুড়ে হিন্দু নির্যাতন বন্ধ ও দুর্গাপুজোয় তিনদিনের ছুটির দাবিতে বুধবার ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই হতাশা প্রকাশ করেন তিনি।

গোবিন্দ বাবু বলেন, এ দেশের হিন্দু সম্প্রদায় গত ১৪ বছর ধরে দুর্গাপুজোয় তিনদিনের সরকারি ছুটির দাবিতে আন্দোলন করছে।

হিন্দু সম্প্রদায়ের দাবি সংবিধান সমুন্নত রাখতে এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় অনুভুতির কথা বিবেচনা করে ৫ দিনের দুর্গাপুজোয় সরকার অন্তত ৩ দিন সরকারি ছুটি ঘোষণা করবে।

এ বছর হিন্দুরা আশা করেছিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাহী আদেশে আমাদের দীর্ঘদিনের দাবিটি পূরণ করবেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা না আশায় আমরা হতাশ ও ক্ষুব্ধ।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ব্যাপকভাবে হিন্দুদের বাড়ি-ঘর, মঠ-মন্দিরে হামলা হয়েছে, লুঠপাট,অগ্নিসংযোগ, খুন, দেশ ত্যাগে বাধ্যকরণ, ধর্ষণ হয়েছে; কিন্তু কারো কোন বিচার হয় হচ্ছে না বা শাস্তি বিধানও করা হয় হচ্ছে না।

সেকারনে হিন্দু সম্প্রদায় এখনো আতঙ্কগ্রস্থ। করোনার অযুহাতে বিভিন্ন স্থানে পুলিশী নিরাপত্তা বিধানে অনিহা প্রকাশের সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। আর একারনে হিন্দু মহাজোট আসন্ন দূর্গাপূজায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা করারও দাবি জানাচ্ছে।

হিন্দু মহাজোট নেতা বলেন, দেশে প্রতিদিনই কোন না কোন স্থানে হিন্দুু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। গত কয়েক দিনের মধ্যে দুর্গা প্রতিমা ভাংচুর করা হয়েছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

হিন্দু নারীকে ধর্ষণ ও ধর্ষণ চেষ্টা, প্রাণনাশের হুমকি, জমি-বাড়ি দখলের অপচেষ্টা, উচ্ছেদ করা হয়েছে। ধর্ম অবমাননার অজুহাতে হিন্দু যুবককে কারাদ- দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, হিন্দু ধর্ম নিয়ে কটুক্তি ডালভাতের মত। বিভিন্ন ওয়াজ মহফিল, ফেসবুক ম্যসেঞ্জার ইত্যাদিতে হিন্দু ধর্ম নিয়ে নানা বানোয়াট অশ্লীল কেচ্ছা কাহিনী প্রচার করা হচ্ছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ এর কোন উত্তর দিলেই ধর্ম অবমাননার অযুহাতে হামলা মামলা ইত্যাদি।

সরকার হিন্দু নির্যাতনকারীদের চিহ্নিত ও গ্রেপ্তারে ব্যর্থ হয়েছে। ফলে অপরাধীরা অপরাধ করতে আরও উৎসাহিত হচ্ছে। হিন্দুদের জনজীবন দিন দিন অসহনীয় ও দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে।

সংবাদ সম্মেলনে হাসিনা সরকারের কাছে ৫ দফা দাবি জানিয়ে গোবিন্দ প্রামাণিক বলেন, আগামী ১৫ নভেম্বরের মধ্যে সরকার আমাদের দাবি বাস্তবায়নের সুস্পষ্ট ঘোষণা না দিলে হিন্দু সম্প্রদায় ঢাকায় মহাসমাবেশ সহ সারাদেশের প্রত্যেক জেলা ও উপজেলা সদরে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন, হিন্দু মহাজোটের সভাপতি বিধান বিহারী গোস্বামী, নির্বাহী সভাপতি দীনবন্ধু রায়, সিনিয়র সহ সভাপতি প্রদীপ চন্দ্র পাল, যুগ্ম মহাসচিব সুজন দে, লাকী বাছাড়, সাংগঠনিক সম্পাদক সুজয় ভট্টাচার্য, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক প্রতীভা বাকচী, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক সুমন সরকার, হিন্দু সাংস্কৃতিক মহাজোটের সভাপতি সাধন লাল দেবনাথ, হিন্দু স্বেচ্ছাসেবক মহাজোটের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ঘোষ, ঢাকা দক্ষিনের সভাপতি ডিকে সমির, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ঘোষ, হিন্দু ছাত্র মহাজোটের সভাপতি সাজেন কৃষ্ণ বল, সাধারণ সম্পাদক সজিব কুন্ডু প্রমূখ ।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

সন্ধ্যারতির পরই বাংলাদেশের পুজোমন্ডপ বন্ধ, জানাল পূজা উদযাপন পরিষদ

Read Next

ঢাকা-শিলিগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেন চালু হবে ২৬ মার্চ ডিসেম্বরে হাসিনা-মোদি উদ্বোধন করবেন ভারত-বাংলাদেশ নতুন রেলপথ

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.