Breaking News

শ্রী সিমেন্ট কর্তা দের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গলের মধুচন্দ্রিমা শেষের পথে

East Bengal's honeymoon with Shri Cement Karta is coming to an end

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা : কোয়েসের পুনরাবৃত্তি । আগের বিনিয়োগ সংস্থার মত এবার শ্রী সিমেন্ট-এর সঙ্গেও ঝামেলা ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের । সিমেন্ট কর্তা রা চুক্তি পত্র পাঠিয়েছিলেন।

সেই চুক্তিপত্রে ক্লাব সই না করলে নতুন মরশুমে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে থাকবে না এই বিনিয়োগ কারী সংস্থা । আইএসএলে এখন দল খেলছে, তাই ক্লাব বনাম বিনিয়োগকারী দুই মেরুতে অবস্থান নিয়ে কোনো ঝামেলা করা হচ্ছে না ।

তবে সিমেন্ট কর্তারা কিন্তু ব্যবস্থা নিচ্ছেন ।

ক্লাব প্রশাসনে নতুন কমিটি দায়িত্ব নিয়েছে । কিন্তু বিনিয়োগকারী সংস্থা বাঙ্গুর গোষ্ঠীর পাঠানো চুক্তিতে সই করার উদ্যোগ নেই ক্লাবের তরফে । চুক্তিপত্র কয়েকমাস আগেই পাঠানো হয়েছিল ।

তাতে স্বাক্ষর করেনি ক্লাব কর্তারা । বিনিয়োগকারী সংস্থা আর ধৈর্য ধরতে রাজি নয় । বাঙ্গুর গোষ্ঠীর এক কর্তার ভাষ্য অনুযায়ী ” আমরা একটা পরিকল্পনা নিয়ে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে গাটছড়া বেধেছিলাম।

দীর্ঘমেয়াদি বিনিয়োগ করার পরিকল্পনা ছিল । কিন্তু তার বাস্তবায়ণ বোধ হয় সম্ভব নয় । তাই চলতি আইএসএলের পরে আমরাও সরে দাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছি। এখন বল ক্লাবের কোর্টে ।

ওরা যদি সই না করে তাহলে আর এই ক্লাবে কাজ করা সম্ভব নয় ।”

শুধু তাই নয়। ক্লাব বনাম বিনিয়োগ সংস্থার টানাপোড়েনের প্রভাব সাজঘরের অন্দরে অল্প মহলেও পড়তে শুরু করেছে । তাঁর কথায়, ” ফুটবলাররাও তাঁদের ভবিষতের কথা জানতে চায় কারণ এখন সবাই দীর্ঘ মেয়াদি চুক্তি করতে চায় । তাই আমরা মরসুম শেষে ফুটবলারদের সব জানিয়ে দেবো ।

অনেক আশা নিয়ে ইস্টবেঙ্গল জার্সিকে আমরা ভালো বেসে এসেছিলাম। অনেক কাজ করতে চেয়েছিলাম আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম করার ইচ্ছে ছিল । যা টাকা খরচ করেছি তাতে বিদেশে যে কোনো জায়গায় দল কিনতে পারতাম । ক্লাব যদি এখনও বোঝে তো ভালো সময় আছে এখনও ।’

ক্লাব কর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কোনো ইস্টবেঙ্গল কর্তা এই বিষয়ে মূখ খুলতে চাননি । ক্লাব কর্তারা এখনও তাঁদের দাঁত ফোঁটাতে নিজেদের অধিকারের বিষয় বুঝে নিতে চাইছে ।

এবছর আই এস এলে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের খেলা সম্ভব ছিলনা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উদ্যোগে নতুন ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্ট আসে ও ইস্টবেঙ্গল আই এস এলে অংশ নেয় ।

কিন্তু লাল হলুদ কর্তারা নিজেদের অধিকার ছাড়তে চাইছেন না। কর্তৃত্ব ছাড়তে না চাওয়ার কারণে ইনভেস্টরদের সঙ্গে ফের বিরোধ ।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

ঋষভ পন্থের সঙ্গে আমার কোনো প্রতিযোগিতা নেই:ঋদ্ধিমান

Read Next

২৬ জানুয়ারি দিল্লির ভেতরে কৃষকদের ট্র্যাক্টর প্যারেডের অনুমতি দিলো পুলিশ

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.