Breaking News

উহানের ল্যাব থেকে ছড়ায়নি করোনা! বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

Do not spread from their lab! World Health Organization

ইস্টার্ন টাইমস , নয়াদিল্লি : কোভিড-১৯ ভাইরাস চীনের উহানের ল্যাব থেকে নাও ছড়াতে পারে বলে জানিয়েছে দেশটিতে সফররত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার(হু) তদন্তকারী দল। একই সঙ্গে ভাইরাসটি প্রথম কোন জায়গা থেকে ছড়িয়েছে সেই বিষয়টিও নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছে তাঁরা ।হু’র খাদ্য সুরক্ষা এবং প্রাণীরোগ বিশেষজ্ঞ পিটার বেন এম্বারেক-এর নেতৃত্বে তদন্তকারী দল চীনা শহর উহান সফর শেষে এই মূল্যায়নের কথা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

২০১৯সালের ডিসেম্বরে উহান শহরেই প্রথম কোভিড-১৯-এর সন্ধান পাওয়া গিয়েছিলো ।

তদন্ত শেষে মঙ্গলবার পিটার বেন এম্বারেক বলেন, তদন্তে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ল্যাব থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে এই অনুমানের ভিত্তি নেই।তিনি বলেন, করোনার উৎস শনাক্ত করতে আরও বেশি সময় ও তদন্ত প্রয়োজন।সংবাদ সম্মেলনে বেন এম্বারেক আরও বলেন, তদন্তে নতুন তথ্য পাওয়া গেলেও, ভাইরাস ছড়ানোর বিষয়ে এখনও পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায়নি।

উহান ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজি ব্যাপকহারে ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করেছিল , যার ফলে অভিযোগ উঠেছিল যে ভাইরাসের নমুনা কোনওভাবে ল্যাব থেকে আশেপাশের জনবসতিতে ছড়িয়ে পড়ায় কোভিড সংক্রমণ শুরু হয়। চীন এই সম্ভাবনাটিকে দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে এবং ভাইরাসটির অন্য কোথাও উদ্ভব হতে পারে এমন অন্যান্য তত্ত্ব প্রচার করেছে।

কীভাবে এই রোগটি মানুষের মধ্যে প্রথম সংক্রামিত হয়েছিল তা নিয়ে হু’র তদন্তকারী দলটি বেশ কয়েকটি তত্ত্ব বিবেচনা করছে।

চীনের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা লিয়াং উনাইনের দাবি, করোনার নতুন রূপটি উহানে শনাক্তের আগে অন্য অঞ্চলে পাওয়া গেছে। তবে কোথায় পাওয়া গেছে তা জানাননি চীনা কর্মকর্তা।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রাণী থেকে মানুষে ভাইরাসটি ছড়িয়ে থাকতে পারে। তবে উহান থেকেই যে ভাইরাস ছড়িয়েছে, তার কোনো প্রমাণ নেই।

চীনের পশ্চিমের হুবেই প্রদেশের শহর উহান। এই শহরেই প্রথম করোনার নতুন গোত্রের ভাইরাস- সার্স সিওভিটু শনাক্ত হয়। বিশ্বজুড়ে এই ভাইরাসে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২৩ লাখ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্ত ১০ কোটি ৭০ লাখ ছাড়িয়েছে।

উল্লেখ্য ,আমেরিকা ,ইউরোপের বিভিন্ন দেশ কোভিড-১৯ সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার জন্য চীনকে দায়ী করলেও , শুরু থেকেই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে তারা ।

বিষয়টি তদন্তে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা উহান পরিদর্শনে আসতে চাইলেও, আপত্তি জানায় বেইজিং। এতে চীনবিরোধী মনোভাব বাড়তে থাকে বিশ্বজুড়ে।করোনার উৎস অনুসন্ধানে একটি আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ দলকে চীনের উহানে পাঠাতে বেশ কয়েক মাস ধরে চেষ্টা চালিয়ে আসছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

গত ডিসেম্বরে ডব্লিউএইচও ঘোষণা করে , বিভিন্ন দেশের ১০ জন বিজ্ঞানীর সমন্বয়ে গঠিত আন্তর্জাতিক তদন্ত দল ২০২১ সালের জানুয়ারিতে উহান যাবে।চীন অনুমতি না দেওয়ায় জানুয়ারির শুরুর দিকে চীন যেতে পারেনি তদন্ত দল। এতে তদন্তের বিষয়ে চীনের আগ্রহ নিয়ে সন্দেহ দেখা দেয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও চীনের কর্মকর্তাদের মধ্যে আলোচনার পর গত ১৪ জানুয়ারি উহান পৌঁছায় বিশেষজ্ঞ দল।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

ভারতে দ্রুতহারে কমছে কোভিড সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার

Read Next

জনতা নয়, ক্যাডার

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.