Breaking News

পাঞ্জাবে পৌরসভার নির্বাচনে ধুয়ে মুছে সাফ বিজেপি , সিংহভাগ কংগ্রেসের দখলে

by-polls in Punjab municipal polls congress

ইস্টার্ন টাইমস, নয়াদিল্লি : মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বিজেপি সদর দপ্তরে দলের সভাপতি জে পি নাড্ডা ,কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ,কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর সহ পাঞ্জাব ,হরিয়ানা , পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের দলীয় সাংসদদের নিয়ে ম্যারাথন বৈঠক করে চলেছেন কৃষক আন্দোলন মোকাবিলার পথের সন্ধানে।ঐদিন রাত পর্যন্ত কোনও পথের সন্ধান না পাওয়ায় বুধবার সকালেও চলেছে বৈঠক।

সেই বৈঠকের সিদ্ধান্ত দেশবাসীর কাছে পৌঁছানোর আগেই এমন একটি খবর দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়লো যাতে বিজেপি নেতাদের কপালের ভাঁজ চওড়া হলো। পাঞ্জাবের পৌর নির্বাচনে কংগ্রেসের জয়-জয়কার, ধুয়ে মুছে সাফ বিজেপি। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন , নয়া কৃষি আইনের প্রতিবাদে উত্তর ভারত জুড়ে কৃষক আন্দোলনের অভিঘাতেই গেরুয়া শিবিরের এই বিপর্যয় ।

হরিয়ানায় আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনেও একই রকম ফলাফলের সম্ভাবনা।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পাঞ্জাবে পৌরসভার ভোট হয়েছিল। ভোট পড়েছে ৭১.‌৩৯ শতাংশ।সোমবার কয়েকটি বুথে পুনর্নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে, আজ, বুধবার মোহালি পুরসভার কয়েকটি বুথে পুনর্নির্বাচন হচ্ছে।

বুধবার সকাল থেকে পঞ্জাবের ৮টি কর্পোরেশন এবং ১০৯টি মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল আর নগর পঞ্চায়েতের ভোট গণনা শুরু হয়।৭টি কর্পোরেশন-সহ অধিকাংশ পুরসভাই কংগ্রেস দখল করেছে।

একক শক্তিতে এবং নির্দলদের সঙ্গে নিয়ে পঠানকোট, বাটালা, হোশিয়ারপুর, অবোহর, ভাতিন্ডা, কপূরথলা, মোগা কর্পোরেশন কংগ্রেসের দখলে।মোহালি কর্পোরেশনের কিছু ওয়ার্ডে ভোটে অনিয়মের অভিযোগে পুনর্নির্বাচন হচ্ছে বুধবার।বৃহস্পতিবার ওই কর্পোরেশনের রেজাল্ট বেরোবে।সবথেকে উল্লেখযোগ্য জয় কংগ্রেস পেল ভাতিণ্ডায়।

৫৩ বছর পর সেখানে মেয়র হবেন কোনও কংগ্রেস প্রার্থী। ভাতিণ্ডার বিধায়ক হলেন কংগ্রেসের মনপ্রীত সিং বাদল। তিনি আবার রাজ্যের অর্থমন্ত্রী।

এছাড়াও একটি পরিচয় রয়েছে মনপ্রীতের। তিনি অকালি দল প্রধান সুখবীর সিং বাদলের তুতো ভাই।এই পুরভোটে মোট ৯,২২২ জন প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারিত হচ্ছে। তাঁদের মধ্যে কংগ্রেস প্রার্থীর সংখ্যা ২,৮৩২।

চলমান কৃষক আন্দোলনের আবহে রাজ্যে চরম বিক্ষোভের মুখে পড়ে মাত্র ১০০৩ জন প্রার্থীই দিতে পেরেছে বিজেপি।এদিন সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত পাওয়া ফলাফলে জানা গেছে ৮০টি পৌরসভার মধ্যে কংগ্রেস ৬৫টি ,শিরোমনি অকালি দল ৫টি এবং নির্দলরা ১০টি দখল করেছে।

বাকি ২৯টি পৌরসভাতে অধিকাংশ আসনে এগিয়ে কংগ্রেস। বিজেপি ও আম আদমি পার্টির ঝুলি শূন্য। যদিও জয় নিয়ে অমরিন্দর সিংয়ের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকারের দিকে আঙুল তুলেছে বিরোধীরা। তাদের দাবি, ভোটে কারচুপি হয়েছে।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

যে ইতিহাস যোগ্য নেতা ও যোদ্ধাদের সম্মান দেয় নি, আমরা তার ভুল সংশোধন করছি : প্রধানমন্ত্রী

Read Next

উত্তরপ্রদেশে আবার ২ দলিত কিশোরীর অস্বাভাবিক মৃত্যু ,একজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.