Breaking News

বাংলার মসনদ দখলের লক্ষ্যে বিজেপির ‘রথযাত্রার’ পরিকল্পনা

BJP rath yatra plan to capture the masnad of Bengal

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা: “তৃণমূল সরকারকে বঙ্গোপসাগরে ফেলার জন্য যা যা করার দরকার সব করা হবে। নানা রকম পরিকল্পনা চলছে। রথযাত্রাও হবে।” রবিবার কলকাতায় আইসিসিআর-এ রাজ্য বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকের শেষে বিশেষ সাংবাদিক বৈঠকে ঐ মন্তব্য দিলীপ ঘোষের। কেন্দ্র ও রাজ্যগুলিতে ক্ষমতা দখলের ক্ষেত্রে বিজেপির কৌশলগুলির মধ্যে ‘রথযাত্রা’র ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তাই এবার বাংলার মসনদ দখলের লড়াইতেও গোটা রাজ্যজুড়ে রথযাত্রার পরিকল্পনা। রথযাত্রার বিস্তৃত পরিকল্পনা এখনো তৈরী হয়নি ,সংগঠনের বিভিন্ন স্তরে এখন আলোচনা চলছে।

তবে রাজ্য বিজেপির এক শীর্ষস্থানীয় সূত্রের খবর অনুযায়ী ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে সংসদের বাজেট অধিবেশনের মধ্যকালীন বিরতির সময় ২৫দিন ধরে রথযাত্রার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

সূত্রের তথ্য অনুযায়ী , রাজ্যে বিজেপির পাঁচটি সাংগঠনিক জোনে রথযাত্রা বের করা হবে।পাঁচটি সাংগঠনিক জোন হলো ,উত্তরবঙ্গ, রাঢ়বঙ্গ, নবদ্বীপ, মেদিনীপুর ও কলকাতা।

রথযাত্রার রুটগুলি ভাবে ঠিক করা হবে যাতে বাংলার ২৯৪টি বিধানসভা আসনেই পায়ের ছাপ ফেলা সম্ভব হবে। অর্থাৎ প্রতিটি কেন্দ্র দিয়েই যাতে রথের চাকা গড়ায়, সেই চেষ্টা করা হচ্ছে।

ওই রথযাত্রার মঞ্চ থেকেই পরিবর্তনের বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হবে বলে জানা গিয়েছে। সূত্র জানিয়েছেন, প্রত্যেকটি রথযাত্রার নেতৃত্ব দেবেন একজন বরিষ্ঠ নেতা।

রাজ্য নেতৃত্ব চাইছেন ফেব্রুয়ারি মাসে সেই রথের সূচনা করুন কোনও কেন্দ্রীয় নেতা। সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা বা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে রথযাত্রার সূচনায় হাজির করার উদ্যোগও শুরু হয়েছে।

এমন ভাবনাও রয়েছে যে রাজ্যের কোথাও একই দিনে পাঁচটি রথ মিলিত হবে। আর সেই দিনও হবে বড় কোনও সমাবেশ। সেই সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থাকতে পারেন কি না, তাও ভাবনার মধ্যে রয়েছে।

যে যে এলাকায় রথ ঘুরবে, সেই এলাকাগুলির স্থানীয় নেতৃত্বকে এক ছাতার তলায় নিয়ে এসে জনসংযোগ গড়ে তোলার দায়িত্ব থাকবে তাঁর ওপরেই। এই সব বিষয় মাথায় রেখেই তৈরি হবে সূচি এবং যাত্রার পথ।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

কবিগুরুর বিশ্বভারতী আজ গৈরিক আগ্রাসনের শিকার

Read Next

জয়ের দেখা নেই গোয়া ম্যাচও ড্র সবুজ -মেরুন ব্রিগেডের

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.