Breaking News

একজন শুভেন্দুকে নিয়েই ২৫০–র বেশি আসন পাবে বলছে, ভাগ্যিস ৩০০ বলে দেয়নি, ব্যঙ্গক্তি সুব্রত মুখার্জির

One Subhendu says he will get more than 250 seats Bhagya did not say 300 says Subrata Mukherjee

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা : ‘একজন শুভেন্দুকে নিয়েই ২৫০–র বেশি আসন পাবে বলছে। ভাগ্যিস ৩০০ বলে দেয়নি।’ রবিবার তৃণমূল কংগ্রেসের সাংবাদিক সম্মেলনে এই ব্যঙ্গক্তি রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখার্জির। শনিবার দলত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

তাঁর সঙ্গেই দল ছেড়েছেন এক সাংসদ ,ছয় বিধায়ক সহ বহু নেতা। এই দলত্যাগ নিয়ে তৃণমূলের অন্দরমহল আন্দোলিত হলেও প্রকাশ্যে দলের নেতারা ‘ডোন্ট কেয়ার’ ভাব দেখানোর চেষ্টা করছেন।

রবিবার সাংবাদিক সম্মেলনে পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি বলেন, ‘‌শুভেন্দুর দলবদলের কিছু কিছু সংবাদ আমাদের কাছে আগেও ছিল। তাই আমরা তাতে হতবাক হয়ে যাইনি। কেউ কেউ গেল গেল রব তুলেছেন।

আমরা সেটা মনে করি না। আমাদের একজন নেত্রী আছেন, যার নাম মমতা ব্যানার্জি। মমতার জনপ্রিয়তাই আমাদের শক্তি।

আর আমাদের দল না হয় সরকারে আছে। কিন্তু সরকারে নেই দীর্ঘদিন কংগ্রেস এবং সিপিএম। তাদের দল থেকেও কয়েকজন চলে গিয়েছেন। এটা একটা রাজনৈতিক অসুখ।

একটা শুভেন্দুকে নিলে কোনও ক্ষতি হবে না। একজন শুভেন্দুকে নিয়েই ২৫০–র বেশি আসন পাবে বলছে। ভাগ্যিস ৩০০ বলে দেয়নি। আমরা বলি আমরা জিতলে মুখ্যমন্ত্রী হবেন মমতা। ইতিহাস সত্যি হলে ওরা বড় জায়গায় আসতে পারবে না। আমরা এটাকে রাজনৈতিক চলে যাওয়া নয়, বলি বিশ্বাসঘাতকতা।

এই বিশ্বাসঘাতকদের দলকে বাংলার মানুষ চিনে নেবে।আমাদের সরকার মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আছে গত ১০ বছর ধরে ।’‌

শনিবার মেদিনীপুরের জনসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দাবি করেছিলেন , গত দেড় বছরে রাজ্যে বিজেপির ৩০০ কর্মী খুন হয়েছেন। সেই দাবি অস্বীকার করে সুব্রতর মন্তব্য, ‘‘মিথ্যে বলছেন অমিত, বিজেপির বেশির ভাগ কর্মী খুন হয়েছেন গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে,অথবা আত্মহত্যা করেছেন ।

বরং এই সময়কালে বিজেপির হাতে তৃণমূলের ১২৭ জন কর্মী খুন হয়েছেন। এ কথা তিনি বলেননি।’’ দিন কয়েক আগে শিরাকোলে বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার মিছিলে হওয়া গোলমাল ইস্যুতে পঞ্চায়েতমন্ত্রী বলেন, ‘নাড্ডা নিজেই নিরাপত্তাবিধি লঙ্ঘন করেছিলেন, অথচ বলা হয়েছে রাজ্য তাঁর নিরাপত্তায় নজর দেয়নি। বিজেপি সভাপতির কনভয়ের নিরাপত্তায় কোনও গাফিলতি ছিল না।

কনভয়ে অতিরিক্ত গাড়ি ঢোকায় সমস্যা হয়েছিল।’ অমিত শাহ শনিবার মেদিনীপুরের জনসভায় দাবি করেছিলেন মমতা ব্যানার্জি নিজেই কংগ্রেস থেকে দলবদল করে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন । রবিবার তার কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়ে সুব্রত মুখার্জি বলেন, ‘অমিত শাহ ভুল তথ্য দিচ্ছেন।

‌মমতা কখনও দলবদল করেননি। কংগ্রেস ছেড়ে তবেই তিনি তৃণমূল গড়েছেন।’ কর্মী–মৃত্যু নিয়েও ভুল তথ্য দিয়েছেন অমিত শাহ। গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে মৃত্যু বা আত্মহত্যা করেছেন বিজেপি কর্মীরা।

দায়ী করা হচ্ছে তৃণমূলকে।’ বিজেপি রবীন্দ্রনাথকে ছোট করেছে, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে বলেও অভিযোগ করেন সুব্রত।তিনি বলেন, ‘‘অমিত শাহের আগমনকে কেন্দ্র করে শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে অসম্মান করে হোর্ডিং দেওয়া হয়েছে। যা বাংলার মানুষ মেনে নেয়নি।

অমিত শাহের ছবির নীচে রবিঠাকুরের ছবি রেখে অপমান করা হয়েছে। সেই কারণেই জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির সামনে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ধরনা দেবে ।’’

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

বিশেষ অজ্ঞের কোভিদ জিজ্ঞাসা

Read Next

বঙ্গের মসনদ দখলের লক্ষ্যে কুচকাওয়াজ শুরু করে দিলেন বিজেপির সাত কেন্দ্রীয় নেতা

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.