Breaking News

দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার

Bali MLA Vaishali Dalmiya is increasing the distance with the team

ইস্টার্ন টাইমস , কলকাতা: ক্রমশ দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার। আজ তাঁকে বাদ দিয়েই হল বালিতে সাংগঠনিক বৈঠক। আর তা নিয়ে অশান্তির জেরে পিকের টিমের সামনেই তৃণমূলের একাংশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়ালেন বৈশাখী ডালমিয়ার অনুগামীরা।

বুধবার বঙ্গজননী কর্মসূচি নিয়ে বেলুড়ের অগ্রসেন ভবনে ১৬ জন প্রাক্তন কাউন্সিলরের সঙ্গে আলোচনায় বসে টিম পিকের সদস্যরা। সেই সময় বালির তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন মহিলা সভাপতি বিজয়লক্ষ্মী রাও ঘটনাস্থলে যান। কেন বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়াকে বাদ দিয়ে সভা করা হল, সেই প্রশ্ন তোলেন তিনি। পিকের টিমের সামনে কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধে সরব হন বিজয়লক্ষ্মী।

এরপরই দু’পক্ষের কথা কাটাকাটি ও পরে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পরে দু’পক্ষ।

বিজয়লক্ষ্মী রাওয়ের অভিযোগ, তাঁকে মারধর করা হয়। বিজয়লক্ষ্মী রাওকে বহিষ্কারের দাবিও জানাচ্ছেন কেউ কেউ। এই ঘটনায় যদিও হতচকিত বৈশালী ডালমিয়া। তিনি বলেন, ‘পিকের টিমের এই ভূমিকায় আমি সত্যিই অবাক। এই টিমটা দলের ভাল চায় নাকি বিভাজন চাইছে তা বুঝতেই পারছি না।’

উল্লেখ্য, দিনকয়েক আগে হাওড়ার বালিতে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বালি থেকে কোনও বহিরাগতকে প্রার্থী না করার আর্জি জানিয়ে পোস্টারিং করা হয়। বাংলা, হিন্দি, উর্দু ভাষায় লেখা একাধিক পোস্টার বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে করা হয়। কারণ কলকাতাবাসী বিধায়কের কাজে খুশি নন দলের স্থানীয় কর্মী, সমর্থকরা। এই প্রসঙ্গে বিধায়ক বৈশাখী ডালমিয়া বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকেই যারা বহিরাগত বলে, আমি তো কোন ছাড়।’
আজকের ঘটনায় দলের সঙ্গে বিধায়কের দূরত্ব আরও স্পষ্ট হল বলেই মত রাজনৈতিক মহলের।

Vinkmag ad

Eastern Times

Read Previous

অফিস টাইম বাদে অন্যসময় ই-পাস আর লাগবে না মেট্রোয় !

Read Next

জানুয়ারি তৃতীয় সপ্তাহ তে ফের শুনানি সৌরভ দের

Leave a comment

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

easterntimes will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.